শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৫:০৯ অপরাহ্ন

কলমাকান্দায় হামলার বিষয় নিয়ে বিএনপির নেতাকর্মীদের নামে মামলা

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট : শুক্রবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ৯৯ পঠিত

কলমাকান্দা (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি : নেত্রকোনার কলমাকান্দা সদর ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি সদস্য মো. এমজাদ মিয়ার ওপর হামলা ঘটনায় বিএনপির নেতাকর্মীদের নামে শুক্রবার থানায় একটি মামলা দায়ের করা  হয়েছে।

আহত এমজাদ মিয়ার ভাই  জলিল মিয়া বাদী হয়ে উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক ও রংছাতি ইউপির চেয়ারম্যান  আনিসুর রহমান পাঠান (বাবুল), যুগ্ম আহবায়ক ও খারনৈ ইউপির চেয়ারম্যান মো. ওবায়দুল হক,  উপজেলা যুবদলের সদস্য সচিব মো. সোলায়মান হক, উপজেলা সেচ্ছাসেবক দলের সদস্য সচিব মো. ইয়াছিন মিয়া এবং উপজেলা ছাত্রদলের সদস্য সচিব শেখ রবিনসহ  ১৫ জন নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করে আরো অজ্ঞাতনামা ৩৫ জনকে আসামি করে এ মামলা দায়ের করা হয়।

ওই মামলায় মো. রমজান আলী (৫০) নামের একজনকে গ্রেপ্তার করে শুক্রবার বিকেলে নেত্রকোনা জেলা আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ। এ তথ্য নিশ্চিত করে কলমাকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা  (ওসি)  আবুল কালাম (পিপিএম) বলেন, মামলার অন্য আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে ।

গ্রেপ্তারকৃত মো. রমজান আলী (৫০) উপজেলার খারনৈ ইউনিয়নের আড়ালিয়া গৌরিপুর গ্রামের মৃত আব্দুল হেলিমের ছেলে।

জানা গেছে, বিএনপি’র ৪৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন উপলক্ষে থানায় অনুমতির জন্য আবেদন করেছিল দলটি। কিন্তু থানা থেকে অনুমতি দেওয়া হয়নি।  এরপরও  বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে মিছিল বের করে নেতাকর্মীরা একাধিক পয়েন্ট দিয়ে কলমাকান্দা সদরের বিএনপি কার্যালয়ে আসতে শুরু করে। এতে বাধা দেয় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা। এক পর্যায়ে তা সংঘর্ষে রূপ নেয়। পরে পুলিশ বেশ কয়েক রাউন্ড রাবার বুলেট ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সংষর্ষে আহত হয় ইউপি সদস্য ও কলমাকান্দা সদর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক এমজাদ মিয়াসহ আওয়ামী লীগ ও বিএনপির অন্তত অর্ধশত নেতাকর্মী।

এবিষয়ে উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক এম এ খায়ের  বলেন, বিএনপি’র ৪৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বিভিন্ন জায়গা থেকে নেতাকর্মীরা বিএনপি কার্যালয়ে আসার সময় পুলিশ বাধা দেয় ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা বিএনপির নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালায়। এসময় পুলিশ আমাদের নেতাকর্মীদের ওপর বেশ কয়েক রাউন্ড ছুড়েছে । এতে বিএনপির  অনেক নেতাকর্মীরা গুলিবিদ্ধসহ আহত হয়েছে। বিএনপির কেউ পুলিশ ও আওয়ামী লীগ  নেতাকর্মীদের ওপর হামলা করেনি।

তিনি আরও বলেন, এখন বিএনপির নেতাকর্মীদের হয়রানি করতেই এ সপ্তাহে কলমাকান্দা থানায়  তিনটি মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। আর এসব মামলায় উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক ও রংছাতি ইউপির চেয়ারম্যান  আনিসুর রহমান পাঠান (বাবুল), যুগ্ম আহবায়ক ও খারনৈ ইউপির চেয়ারম্যান মো. ওবায়দুল হক, উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক ও লেংগুরা ইউপির চেয়ারম্যান মো. সাইদুর রহমান ভূইয়া, উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল মতিন, উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক মো. জহিরুল ইসলাম ও সদস্য সচিব মো. সোলায়মান হক, উপজেলা সেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক  মো. আনোয়ার হোসেন আজাদ আইনল ও সদস্য সচিব মো. ইয়াছিন মিয়া এবং উপজেলা ছাত্রদলের আহবায়ক গোলাম রসূল ও সদস্য সচিব শেখ রবিনসহ ৬৭ জন  নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করে আরো অজ্ঞাতনামা ৩৭৫ জনকে আসামি করা হয়েছে ।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এক ক্লিকে বিভাগের খবর
© All rights reserved © 2023 digantabangla24.com
Design & Developed BY Purbakantho.Com