Logo
নোটিশ ::
Wellcome to our website...

ঢাকায় নিখোঁজ মিনিবাস দুর্গাপুরে উদ্ধার, প্রেপ্তার-২

রিপোর্টারের নাম / ৩৪৮ বার
আপডেট সময় :: বুধবার, ৩১ মার্চ, ২০২১

দুর্গাপুর(নেত্রকোনা)প্রতিনিধি : নেত্রকোনার দুর্গাপুরে গাঁওকান্দিয়া ইউনিয়নের জাগিরপাড়া গ্রাম থেকে মিনি বাস চুরির ঘটনায় সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে দুজনকে আটক করেছে থানা পুলিশ। মঙ্গলবার বিজ্ঞ আদালত দুই অভিযুক্তকে জেল হাজতে প্রেরণ করে।

ঢাকায় মিনিবাস চুরির সন্ধান পেয়ে ঢাকার তেজগাঁও এলাকার আব্দুল মজিদের পুত্র মালিক আলী দুর্গাপুর থানায় আসেন। পরে মালিককে নিয়ে পুলিশের এস আই রুকন ওই এলাকা থেকে মিনিবাসটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। এ ঘটনায় গত শনিবার শ্রীপুর মডেল থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করেন আলী আজম। গ্রেপ্তারকৃত সুরুজ্জামান (৩০) ময়মনসিংহ জেলার ফুলবাড়িয়া উপজেলার বালুরঘাট এলাকার মুসলীম উদ্দিনের ছেলে, রিয়াজ উদ্দিন (২২) গাজীপুর জেলার শ্রীপুর গ্রামের টেপির বাড়ি এলাকার ভাড়াটিয়া বাসায় থাকতেন। সে ওই গ্রামের হেলাল উদ্দিনের ছেলে। গত শুক্রবার ভোর ৪টার দিকে মাওনা গ্যাস পাম্প থেকে চুরি হয়ে যায় ওই মিনিবাসটি। অভিযুক্ত ব্যক্তি স্থানীয় ভাঙ্গারি ব্যবসায়ী সুরুজ এর সহায়তায় পরদিন সকালে বাসটি জাগিরপাড়া গ্রামে নিয়ে আসে। বাসটি কে ট্রাক বানানোর জন্য ওই এলাকার মেম্বার মোহাম্মাদ আলীর বাড়ি থেকে বিদ্যুৎ সংযোগ এনে কেটে টুকরো টুকরো করছিল সুরুজ আলী। মিনিবাস চুরির ঘটনায় সংশ্লিস্ট ইউপি সদস্য মোহাম্মদ আলীও জড়িত রয়েছেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

এ নিয়ে বুধবার সরেজমিন ঘুরে জানা যায়, গত ২৭ মার্চ সকালে জাগিরপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে অবস্থান করে মিনিবাসটি। পরে ভাঙারি ব্যবসায়ী সুরুজ আলী স্কুল মাঠ থেকে মেম্বারের বাড়ির দক্ষিণ দিকে ফাঁকা জায়গাতে মিনিবাসটি কাটতে শুরু করে। এ ঘটনাটি স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীদের সন্দেহ হলে ইউপি চেয়ারম্যান খবর পেয়ে গ্রাম্য পুলিশ দিয়ে বাসটি কাটতে নিষেধ করেন। এ খবর পেয়ে দুর্গাপুর থানা পুলিশ সোমবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে গাঁওকান্দিয়া বাজার থেকে অভিযুক্ত দুজনকে আটক করে। পুলিশের খবর পেয়ে ভাঙারি ব্যবসায়ী সুরুজ আলী এলাকা থেকে সটকে পড়েন।

স্থানীয় ইউপি মেম্বার মিনিবাস চুরির সাথে সম্পৃক্ততা থাকার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি কোনভাবেই জড়িত না। মিনি বাসটি চুরির জানলে বিদ্যুৎ সংযোগ দিতাম না। পলাতক ভাঙারি সুরুজের বাড়িতে গেলে স্ত্রী রেজিয়া এ ঘটনার সাথে ইউপি মেম্বার জড়িত আছেন বলে জানান। ওইদিন বিকেলে সুরুজ এর বড়ি থেকে বাসের ব্যাটারী ও কাটা এঙ্গেল, বাসের অন্যান্য মালামাল উদ্ধার করে নিয়ে আসে পুলিশ।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন মোতালেব জানান, ঘটনাটি এলাকার মানুষের মাঝে সন্দেহ তৈরী হলে পুলিশে খবর দেয়া হয়। পুলিশ তদন্ত করে এর সাথে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে দুজনকে আটক করে। মিনিবাস চুরির সাথে যারা জড়িত তাঁদেরকে আইনের আওতায় আনা উচিত। এটি এলাকার জন্য অত্যন্ত লজ্জাজনক ঘটনা।

দুর্গাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহনুর-এ আলম জানান, মিনিবাস চুরি করে কে বা কাহারা ওই এলাকায় এনেছে এমন খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাটাই। ইতোমধ্যে দুজনকে আটক করে কোর্টের মাধ্যমে ৫৪ ধারায় জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছেবাসটির মালিক এসেছিলেন। চুরির ঘটনাস্থল শ্রীপুর মডেল থানার আওতায় হওয়ায় তাৎক্ষণিত ভাবে এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারছিনা। বিধিমোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণের প্রস্ততি চলছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর

Theme Created By ThemesDealer.Com