সোমবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৪:০৫ অপরাহ্ন

আটকের পর যা বললেন জো বাইডেনের সেই উপদেষ্টা

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট : সোমবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২৩
  • ২৯ পঠিত

দিগন্ত ডেক্স : মিসলিড করে আমাকে কিছু বিষয় শিখিয়ে বিএনপি কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। রাস্তায় পুলিশের অনেক বেরিগেট দেখে ভয় পেয়ে বলি যে, আমি নিজেকে সুরক্ষিত মনে করছি না। এখানে আমার জন্যে যাওয়া ঠিক হবে না। কিন্তু তারপরেও আমাকে সেখানে নিয়ে গিয়ে মিসলিডিং করে আমাকে দিয়ে সংবাদ সম্মেলনে কথা বলানো হয়েছে।

সোমবার (৩০ অক্টোবর) এসব কথা বলেন ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) হেফাজতে থাকা মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের কথিত ভুয়া উপদেষ্টা মিয়া জাহিদুল ইসলাম আরেফী (মিয়ান আরাফী)।

তিনি আরও বলেন, লে. জেনারেল হাসান সোরাওয়ার্দী ২৮ অক্টোবর বিকাল ৩টার সময় আমাকে আমার বাসা থেকে বিএনপির পার্টি অফিসে নিয়ে যান। সেখানে আমাকে দিয়ে তারা বক্তব্য দেয়ান। সেখানে ইশরাকও উপস্থিত ছিলো। আরও ছিলেন বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট বেলাল। আমি তাকে চিনি না কোনদিন দেখিনি। তারপর একটি ঘোষণা দেয়া হলে নিচে অপেক্ষারত নিউজ-মিডিয়ার লোকজন উপরে আসেন। সেখানে আমাকে দিয়ে বক্তব্য দেয়া হয়।

মিয়ান আরাফী বলেন, সেখানে লে. জেনারেল হাসান সোরাওয়ার্দী, বিএনপির নেতা অ্যাডভোকেট বেলাল ও ইশরাক হোসেন আমাকে বাইডেনের উপদেষ্টা হিসেবে উপস্থাপন করেছেন। আসলে এটি সত্য নয়। তারা আমাকে বিভ্রান্ত করে মিথ্যাভাবে উপস্থাপন করেছেন।

তিনি আরও বলেন, আমার এটা ভুল হয়েছে। আমি জানতাম না এত বড় অন্যায় হয়েছে। পুলিশ সদস্য মারা গেছেন, শত শত মানুষ আহত হয়েছেন, প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলা হয়েছে। এগুলো আমি কিছুই জানতাম না। আমি খুবই দুঃখিত। আমাকে পুরো শিখিয়ে দিয়ে বলানো হয়েছে।

এর আগে রোববার (২৯ অক্টোবর) দুপুরে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে জাহিদুল ইসলাম আরেফীকে আটক করে ইমিগ্রেশন পুলিশ। পরে তাকে গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) কাছে হস্তান্তর করা হয়।

জানা গেছে, মিয়ান আরাফী যুক্তরাষ্ট্রের মেরিল্যান্ডে থাকেন। তিনি বাংলাদেশি আমেরিকান। তার জন্ম ও বেড়ে ওঠা সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়ায়। যুক্তরাষ্ট্রে বাস করলেও তিনি মাঝেমধ্যেই দেশে আসেন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এক ক্লিকে বিভাগের খবর
© All rights reserved © 2023 digantabangla24.com