Logo
নোটিশ ::
Wellcome to our website...

ভারতফেরত যাত্রীদের নিজ খরচে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন

রিপোর্টারের নাম / ১৪৮ বার
আপডেট সময় :: বৃহস্পতিবার, ১ এপ্রিল, ২০২১, ১১:২২ পূর্বাহ্ন

দিগন্ত ডেক্স : করোনা ভাইরাস শনাক্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা অতিমাত্রায় বেড়ে যাওয়ায় সংক্রমণ প্রতিরোধে ব্যবস্থা নিতে আবারও ভারতফেরত যাত্রীদের ১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশনা দিয়েছে সরকার। মঙ্গলবার (৩০ মার্চ) এ-সংক্রান্ত নির্দেশনার একটি প্রজ্ঞাপন বেনাপোল ইমিগ্রেশনের স্বাস্থ্য বিভাগ ও ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষের হাতে পৌঁছেছে।তবে আগে, দেশে ফেরে পাসপোর্টধারী যাত্রীরা সরকারি অর্থায়নে এ প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে থাকার সুযোগ পেলেও এবার ব্যক্তিগত খরচে কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে যাত্রীদের। এ কোয়ারেন্টিন বাধ্যতামূলোক করা হয়েছে। এতে দুশ্চিন্তা ও হতাশায় পড়েছেন যাত্রীরা। সরকারি তত্ত্বাবধানে কোয়ারেন্টিন চালুর দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।

এদিকে পূর্বপ্রস্তুতি না থাকায় এই মুহূর্তে ভারতফেরত যাত্রীদের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা সম্ভব হচ্ছে না বলে জানায় স্বাস্থ্য বিভাগ।

বেনাপোল ইমিগ্রেশন স্বাস্থ্য বিভাগের মেডিক্যাল অফিসার আশরাফুজ্জামান জানান, যাত্রীদের কোয়ারেন্টিনে রাখার পরিবেশ তৈরি করতে স্থানীয় প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগ যৌথভাবে কাজ করছে। এ নিয়ে উপজেলা প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠক রয়েছে। পরিবেশ তৈরি করে আগামী দুই-এক দিনের মধ্যে কোয়ারেন্টিন কার্যক্রম তাঁরা শুরু করবেন।

ভারতফেরত যাত্রী আবু সালেহ জানান, চিকিৎসা করাতে ভারতে গিয়েছিলাম। যাওয়ার সময় ১৫শ’ টাকা করোনা পরীক্ষা করাতে লেগেছিল। আবার ফেরার সময় ভারতীয় ১৫শ’ রুপি লেগেছে করোনা রিপোর্ট করতে। নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে তিনিও চান কোয়ারেন্টিন ব্যবস্থা। তবে খরচ নিয়ে দুশ্চিন্তা করছেন তিনি। সরকারিভাবে কোয়ারেন্টিন সেবার দাবি জানান তিনি।

উল্লেখ্য, বর্তমানে করোনা পরিস্থিতিতে শর্তসাপেক্ষে শুধু বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে যাত্রীদের ভারত প্রবেশের সুযোগ রয়েছে। প্রতিদিন এক হাজার থেকে ১৫শ’ যাত্রী দুই দেশের মধ্যে যাতায়াত করছে। তাদের ৯৫ শতাংশ মেডিক্যল ভিসার যাত্রী। অন্যান্য ৫ শতাংশ যাত্রী যাচ্ছেন বিজনেস ও কূটনৈতিক ভিসায়। টুরিস্ট ভিসা গত বছরের ১৩ মার্চ থেকে বন্ধ রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর

Theme Created By ThemesDealer.Com