Logo
নোটিশ ::
Wellcome to our website...

দুর্গাপুর সরকারি চাল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ

রিপোর্টারের নাম / ৬২ বার
আপডেট সময় :: রবিবার, ১০ মে, ২০২০

দুর্গাপুর(নেত্রকোনা)প্রতিনিধি : নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলার ২নং দুর্গাপুর সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহীনুর আলম সাজুর বিরুদ্ধে সরকারি চাল বিতরনে নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ করেছেন ইউপি সদস্য মোছা: আছমা আক্তার। রোববার দুপুরে ওই এলাকার ভুক্তভোগীরা দুর্গাপুর প্রেসক্লাবে এসে সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

অভিযোগের সুত্রে জানা গেছে, করোনা ইস্যুতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উদ্দ্যেগে ১ম ধাপে প্রতি পরিবারে জি.আর কর্মসূচীর আওতায় ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের উপকারভোগীদের ২০কেজি করে ৭৫ জনকে চাল দেয়ার কথা থাকলেও ওই পরিবারকে ১০ কেজি করে চাল দেয়ার বিপরিতে মাস্টার রোলে বিশ কেজি সরবরাহের টিপসহি নেওয়া হয়েছে। সরবরাহকৃত চালের মধ্যে কেউ ৭.৫ থেকে ৮ কেজি পরিমানে চাল ও পেয়েছেন। ২য় ধাপে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে ৫শ জনকে ১০ কেজি করে চাল বিতরণ করা হলে সেখানেও বিতরনে ওজনে চাল কম দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। লকডাউন উপেক্ষা করে সামাজিক দুরত্ব বজায় না রেখে চাল বিতরণ করায় দেখা দিয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া। এর আগেও এমন স্বেচ্ছাচারিতার কারণে চেয়ারম্যান এর নানা অপর্কেমর ফিরিস্তি তুলে ধরে জেলা ও উপজেলা প্রশাসন এর কাছে লিখিত অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার মেলেনি বলে জানান ইউপি সদস্য মোছা: আছমা আক্তার। এছাড়া দরপত্র ছাড়া রেজুলেশনের দোহাই দিয়ে কিছু সংখ্যক ইউপি সদস্যদের ফুসলিয়ে গাছ কর্তন, বালুর ডাইভার্সন, জন্ম নিবন্ধন বাবাদ টাকা আত্মসাৎ, ইউনিয়ন পরিষদের মার্কেট থেকে ভাড়া আদায় ও মোটা অংকের সিকিউরিটির টাকা ইউনিয়ন পরিষদের ব্যাংক হিসাবে গচ্ছিত না রেখে ব্যক্তিগত খাতে ব্যবহার করারও অভিযোগ রয়েছে। জি.আর প্রকল্পের আওতায় বেদেনা আক্তার নামে উপকারভোগীর কাছ থেকে দুই স্থানে টিপসহি নিলেও এখন পর্যন্ত তার চাল পাননি বলে সাংবাদিকদের নিকট অভিযোগ করেন। এ বিবরণ বলতে গিয়ে বার বার কান্নায় ভেঙ্গে পড়ের ওই ভুক্তভোগী।

অভিযোগ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান শাহীনুর আলম সাজু জানান, আমার বিরুদ্ধে দেয়া সকল অভিযোগই মিথ্যা। আমি এর কিছুই জানিনা। পরিষদের অন্যান্য সদস্যগন রয়েছে তাঁদের সাথে কথা বলে দেখতে পারেন। এছাড়া সকল ইউপি সদস্যদের নিয়ে রেজুলেশন করে ওই সিদ্ধান্ত মোতাবেক সকল কাজ সম্পাদন করে থাকি।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফারজানা খানম বলেন, আমি উভয়েরই লিখিত অভিযোগ পেয়েছি, ইতোমধ্যে বিষয়টি তদন্ত করে দেখার জন্য কমিটি করে দিয়েছি, প্রতিবেদন পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর

Theme Created By ThemesDealer.Com