Logo
নোটিশ ::
Wellcome to our website...

দুর্গাপুরে জনবান্ধব বাজেটের দাবীতে সিপিবি‘র মানববন্ধন

রিপোর্টারের নাম / ৩৯২ বার
আপডেট সময় :: শনিবার, ২৭ জুন, ২০২০

দুর্গাপুর(নেত্রকোনা)প্রতিনিধি : জেলার দুর্গাপুরে ২০২০-২১ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট প্রত্যাহার সহ জনবান্ধব বাজেট ঘোষনা করার দাবীতে মানববন্ধন করেছে কমিউনিস্ট পার্টি অব বাংলাদেশ (সিপিবি) দুর্গাপুর উপজেলা শাখা। শনিবার দুপুরে উপজেলা সড়কে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

উত্থাপিত বাজেট প্রস্তাব প্রত্যাহার করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় এবং চলমান করোনাকালীন বাস্তবতা বিবেচনায় স্বাস্থ্য-শিক্ষা-কৃষি-কর্মসংস্থানকে প্রাধান্য দিয়ে পুনরায় বাজেট প্রণয়নের আহ্বান জানিয়ে সিপিবি উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদক রুপন সরকারের সঞ্চালনায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সিপিবি কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ডাঃ দিবালোক সিংহ, সিপিবি উপজেলা কমিটির সভাপতি আলকাছ উদ্দিন মীর, সদস্য শামছুল আলম খাঁন, কৃষক সমিতির সাধারন সম্পাদক মোরশেদ আলম, যুব ইউনিয়ন সভাপতি নজরুল ইসলাম, ছাত্র ইউনিয়ন সভাপতি সাহান আলী প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, জাতীয় সংসদে উত্থাপিত বাজেট প্রন্তাব ৯৯ শতাংশ মানুষের স্বার্থবিরোধী, গতানুগতিক ও আমলাতান্ত্রিক। এই বাজেটে এক শতাংশ লুটেরা ধনীকের স্বার্থ সংরক্ষিত হবে। গণবিরোধী এই বাজেট প্রত্যাখান করে করোনা মহাবিপর্যয়কালে বিশেষ নতুন বাজেট ঘোষনার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছিল।

সিপিবি কেন্দ্রীয় নেতা ডাঃ দিবালোক সিংহ বলেন, সরকার এই বাজেট ঘোষনা করে সিপিবিসহ দেশের আপামর মানুষের আকাঙ্খা পদদলিত করে এক শতাংশ মানুষের স্বার্থে আমলাতন্ত্রের জন্য সাজানো এবং গরিব মারার বাজেট ঘোষণা করেছেন। বাজেটের ঘোষিত বেশির ভাগ টাকাই খরচ হবে আগের ঋণ পরিশোধ, মিলিটারি প্রশাসনের রক্ষণাবেক্ষণ, বিলাস দ্রব্য আমদানি, অপচয়, দুর্নীতিসহ বিভিন্ন প্রকারের সিস্টেম লস, কর-রেয়াতের নামে ধনিক শ্রেণিকে বিশাল ভর্তুকি প্রদান করতে। এর বাইরে ঢালাওভাবে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ এবারও অব্যাহত রাখার মাধ্যমে অর্থনীতিতে লুটপাটের ধারা আরও জোরদার করার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, ধনীকে আরও ধনী এবং গরিবকে আরও গরিব করা, ধন-বৈষম্য ও শ্রেণি-বৈষম্য বৃদ্ধি করা, সামাজিক অস্থিরতা ও নৈরাজ্য বৃদ্ধি করা ইত্যাদি হবে এই বাজেটের ফলাফল। এই বাজেট জাতির অর্থনৈতিক-সামাজিক-রাজনৈতিক পরিমন্ডলে নৈরাজ্য, অস্থিতিশীলতা ও নাজুকতা বাড়িয়ে তুলবে। প্রস্তাবিত বাজেটে জনকল্যাণমূলক পদক্ষেপের কথা বলা হলেও আসলে সেগুলো প্রসাধনমূলক ও ধোকা দেয়ার উদ্দেশ্যে বলা। বাঙ্গালী জাতি আন্দোলন করেই জন্ম নিয়েছে। প্রয়োজনের প্রত্যেক পাড়া মহল্লা ও ইউনিয়নে এই অমুলক বাজেট সম্পর্কে সকলকে সজাক করে জনবান্ধব বাজেট ঘোষনা করতে সরকারকে বাধ্য করতে দেশ ও জাতির স্বার্থে সকলকে এগিয়ে আসার আহবান জানান কেন্দ্রীয় নেতা ডাঃ দিবালোক সিংহ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর

Theme Created By ThemesDealer.Com