Logo
নোটিশ ::
Wellcome to our website...

কাফনের কাপড় ও জবাই করা মুরগি পাঠিয়ে হুমকি

রিপোর্টারের নাম / ১৪৯ বার
আপডেট সময় :: সোমবার, ২৫ অক্টোবর, ২০২১, ৮:৫৮ পূর্বাহ্ন

দিগন্ত ডেক্স : শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার নয়াবিল ইউনিয়ন পরিষদের ডিজিটাল সেন্টারের উদ্যোক্তা মুকুল হোসেনকে জবাই করা মুরগী ও কাফনের কাপড়সহ মৃত্যু পরবর্তী সরঞ্জাম পাঠিয়ে চিরকুট লিখে মৃত্যুর জন্য প্রস্তুতি নিতে হুশিয়ারি দেওয়া সুমন আহমেদ (৩২) নামে এক যুবককে আটক করেছে থানা পুলিশ। রবিবার(২৪ অক্টোবর) সকালে থানায় জিডির ওই দিন রাতেই অভিযান চালিয়ে নিজ বাড়ি খলিসাকুড়া গ্রাম থেকে তাকে আটক করা হয়। আটককৃত যুবক ওই ইউনিয়ন পরিষদের ৭নং ওয়ার্ডের ইউপি সদ্য সুরুজ্জামানের ছেলে।

পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্ত সুমন জানায়, তার বাবা ইউপি সদস্য সুরুজ্জামানের বিভিন্ন কাজে উদ্যোক্তা মুকুল অসহযোগিতা করত। এ ক্ষোভেই মুকুলকে সতর্ক করতে সে জবাই করা মুরগী, কাফনের একসেট কাপড়, সাবান, আগরবাতি ও গোলাপজল এর সাথে চিরকুট লিখে মুকুলের বারান্দায় রেখে আসে।

পুলিশ জানায়, ভুক্তভোগী মুকুল সকালে থানায় সাধারণ ডায়েরি করার পর পুলিশ ঘটনা তদন্তে নামে। তদন্তের একপর্যায়ে কাফনের কাপড় যে দোকান থেকে কেনা হয়েছে সে দোকান খুঁজে বের করে এবং ওই দোকানে থাকা সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে অভিযুক্তকে শনাক্ত করে।

পরে রাতেই নিজ বাড়ি থেকে হুমকীদাতা সুমনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে অকপটে সব স্বীকার করে। এদিকে এলাকাবাসী জানিয়েছে, সুমন কিছুটা অস্বাভাবিক আচরণ করে সবসময়। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন জায়গায় চুরির অভিযোগও রয়েছে।

ভুক্তভোগী মুকুল বিডি২৪লাইভকে জানায়, এ কাজটি তার একার বুদ্ধিতে করার কথা নয়। অবশ্যই এর পেছনে কারও হাত রয়েছে। তিনি নিজের জীবনের প্রতি সংশয় প্রকাশ করে বিষয়টি গভীরভাবে তদন্ত করতে পুলিশের প্রতি অনুরোধ জানান।

নালিতাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বছির আহমেদ বাদল বিডি২৪লাইভকে জানান, কাফনের কাপড়ের সূত্র ধরে আমরা প্রথমে দোকান শনাক্ত করি। এরপর ওই দোকানের সিসি টিভি ফুটেজ দেখে অভিযুক্তকে শনাক্ত করি। এ বিষয়ে আইনী প্রক্রিয়া অব্যাহত রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর

Theme Created By ThemesDealer.Com